Spread the love

চুলের যেকোনও সমস্যার সমাধানে এই ১টি উপাদানই যথেষ্ট!চুলের সমস্যায় ভুগেন না এমন মানুষ কমই আছে। বিশেষ করে চুল পড়া, রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যাওয়া এসব সমস্যা। তখন চুলের মসৃণতা ফিরিয়ে আনতে তখন কতো কিনা করতে হয়।

চুলের যেকোনও সমস্যার সমাধানে এই ১টি উপাদানই যথেষ্ট!জানেন কি, এসব সমস্যার সমাধানে জাদুকরি ফল প্রদান করে টক দই। টক দইয়ে আছে প্রচুর পরিমানে ক্যালশিয়াম ও ভিটামিন ডি যা হাড়, দাঁত, নখ ও চুলকে মজবুত করতে সহায়তা করে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক চুলের স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য এর ব্যবহার সম্পর্কে-

> এক কাপ পরিমান টক দই নিয়ে আঙ্গুলের সাহায্যে সরাসরি চুলের গোড়ায় গোড়ায় ভালো করে ম্যাসেজ করতে হবে প্রায় ৫ মিনিট। এরপর ২০ থেকে ৪০ মিনিট রেখে ভালো কোনো শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এতে চুল হবে সিল্কি।

> মেহেদী কখনোই সরাসরি চুলে ব্যবহার করতে নেই। এতে চুল রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। তবে এর সঙ্গে টক দই ব্যবহার করে নিশ্চিন্তে এই প্যাক চুলে লাগানো যাবে। দুই ঘন্টা পর চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। মেহেদী দিলে সেই দিন শ্যাম্পু ব্যবহার না করাই ভালো। পরের দিন শ্যাম্পু করতে হবে।

> টক দই দিয়ে তৈরি যেকোনো প্যাকই চুলের জন্য উপকারী। প্রায় ২ টেবিল চামচ টক দই, ১ চা চামচ অলিভ অয়েল ও ১ টি ডিম ব্যবহার করে একটি প্যাক বানিয়ে নিন। টক দইয়ে আছে প্রোটিন যা চুলের গোড়া মজবুত করতে সহায়তা করে। এটি চুলের গোড়া সহ সম্পুর্ণ চুলে লাগিয়ে নিন। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করলে চুল হবে প্রাণবন্ত।

> আধা কাপ মধু, আধা কাপ দই, দুই টেবিল চামচ অলিভ বা অন্য কোনো এসেনশিয়াল অয়েল দিয়ে বানানো প্যাক চুলের গোড়া সহ সম্পুর্ণ চুলে লাগিয়ে নিন। মধু খুশকি দূর করতে সহায়তা করে। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করার পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুণ। এটি সপ্তাহে দুই দিন ব্যবহার করুন।

আরো দেখুন:- মাড়ির যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছেন! সমাধান মিলবে এই উপাদানে|

> চুলের জন্য যেকোনো প্যাক বানালে সঙ্গে টক দই ব্যবহার করলে চুলের স্বাস্থ্য বজায় থাকে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *