Spread the love

 মা ও ভাইকে করোনা হাত থেকে বাঁচালো ১১ বছরের এক শিশু। চলুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে? ১১ বছরের এক শিশু গোটা পরিবারকে বাঁচালো করোনা আক্রমণ থেকে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে, ১১ বছরের পঙ্কজ মা ও ভাইয়ের সঙ্গে আহমেদাবাদ এ মামার বাড়ি গিয়েছিল।লকডাউন শুরু হয়ে যাওয়াতে সেখানেই থেকে যায়। লকডাউন খানিক শিথিল হতে তারা উত্তরপ্রদেশে ফিরে আসেন। নিয়ম মেনে ‘হোটেল আম্বিয়েন্স’নামে শহরে একটি  হোটেলে তাদের কোয়ারান্টিনে রাখা হয়।


মা ও ভাইকে করোনা হাত থেকে বাঁচালো ১১ বছরের এক শিশু। চলুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে? ছোট্টটি হলে কি হবে! করোনা ভাইরাস সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন। এই ১১বছরের শিশু নাম যার পঙ্কজ! আহমেদাবাদ থেকে ফেরার পরেরদিন এই করনা পরীক্ষার জন্য তার লালা রসের নমুনা সংগ্রহ না করা হলে, সে রেগে যায় এবং ছাদ থেকে লাফ দেয়ার হুমকিও দেয়।

আরো দেখুন:- বাড়ির বাইরে গেলে সংক্রমণ এড়াতে কোন কোন সতর্কতাগুলি মেনে চলবেন, আসুন দেখে নেয়া যাক।


পরিস্থিতি সামলাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পৌঁছায় পুলিশ কমকর্তা। মা ও ভাইয়ের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।

পরীক্ষায় দেখা যায় পঙ্কজ করোনা পজেটিভ। এক প্রকার দেখতে গেলে করোনা হাত থেকে সে তার গোটা পরিবারকে বাঁচালো। সে যদি করোনা পরীক্ষার জন্য এত জোরাজুরি না করতো তাহলে হয়তো তার থেকে তার পরিবারের সদস্যের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়ে যেত।
আসুন এই ছোট্ট শিশুটির জন্য আমরা প্রার্থনা করি, যাতে এই শিশুটি আবার সুস্থ হয়ে যায়, কারণ এই শিশুটির জন্য আজকে তার পরিবার বেঁচে গেল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *