আসাম গন হত্যাকাণ্ডে হওয়া বন্ধের প্রভাব, পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার বাজারে




কোচবিহার: অসমে ৫ বাঙালি যুবককে নিশানায় রেখে নৃশংস হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে আলফা জঙ্গিরা । এই হত্যাকাণ্ডে প্রাণ হারান, শ্যামলাল বিশ্বাস, অনন্ত বিশ্বাস, অবিনাশ বিশ্বাস ও সুবোধ দাস এবং ধনঞ্জয় নমঃশূদ্র। আসামের তিনসুকিয়ায় অঞ্চলে হওয়া এই ঘটনায় নড়ে উঠছে পশ্চিম বাংলা সহ পুরো দেশ। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিং। 


এই ঘটনার প্রতিবাদে হওয়া বন্ধের প্রভাব পড়েছে কোচবিহার বাজারেও জেলার দুটি ব্যবসায়ী সংগঠনের দেওয়া হিসাবে প্রাথমিকভাবে সব মিলিয়ে দু’দিনে অন্তত এক কোটি টাকার ব্যবসা মার খেয়েছে বলে তাদের অনুমান। 


ব্যবসায়ী সমিতি সূত্রে জানা গিয়েছে, কোচবিহার জেলা সদরের বাজারের ওপর নিম্ন অসমের বাসিন্দাদের অনেকেই নির্ভর করেন। ধুবুরি, কোকরাঝাড়-সহ নিম্ন অসমের বিস্তীর্ণ এলাকা থেকে দুর্গাপুজো, কালীপুজোর মতো নানা উৎসবের মুখে অসমের ক্রেতাদের আনাগোনা বেড়ে যায়। কোচবিহার থেকেই দীপাবলির মুখে মোমবাতি, বৈদ্যুতিন আলোকসজ্জা, আতসবাজি নিতে অসমের ব্যবসায়ীরা অনেকে ভিড় করেন। ৬ নভেম্বর কালীপুজো বলে শুক্রবার, শনিবার থেকে ওই ভিড় উপচে পড়বে বলেই জেলা সদরের ব্যবসায়ীদের আশা ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার তিনসুকিয়ায় পাঁচ জন বাঙালিকে সন্দেহভাজন জঙ্গিরা গুলি করে হত্যা করার পরে পরিস্থিতি বদলে যায়। এবং তার সরাসরি প্রভাব পড়েছে কোচবিহার বাজারে। 

The impact of mass killing of Assam in cooch Bihar market.

West Bengal News, Bengali News, Bangla News

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ